এইচএসসি পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট

১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায়

এইচএসসি পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট

১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায়
এইচএসসি পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট

অধ্যায় পরিচিতি

পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট। উক্ত অধ্যায়ের নাম মহাকর্ষ ও অভিকর্ষ। আজকে আমরা এই অধ্যায়ের সাজেশন দেওয়ার চেষ্টা করব।

আরো পড়ুন>> এইচএসসি জীববিজ্ঞান ১ম পত্র ৫ম অধ্যায় নোট

জ্ঞানমূলক প্রশ্ন

প্রশ্ন ১. সান্দ্রতা কাকে বলে?

উত্তর: যে ধর্মের জন্য কোন প্রবাহীর বিভিন্ন স্তরের আপেক্ষিক গতিতে বাধার সৃষ্টি হয় তাকে ঐ প্রবাহীর সান্দ্রতা বলে।

প্রশ্ন ২. গ্রাডিয়েন্ট কাকে বলে?

উত্তর: স্কেলার ক্ষেত্রের গ্রাডিয়েন্ট একটি ভেক্টর ক্ষেত্র, যা স্কেলার ক্ষেত্রের কোনো বিন্দুতে এর বৃদ্ধিতে এর বৃদ্ধির হার ও বৃদ্ধির দিক নির্দেশ করে।

প্রশ্ন ৩. ব্যাসার্ধ ভেক্টর কাকে বলে?

উত্তর: প্রসঙ্গ কাঠামোর মূলবিন্দুর সাপেক্ষে অন্য কোেো বিন্দুর অবস্থান যে ভেক্টর দ্বারা প্রকাশ করা হয়, তাকে ঐ বিন্দুর অবস্থান ভেক্টর বা ব্যাসার্ধ ভেক্টর বলে।

প্রশ্ন ৪. পরিমাপের লম্বন ত্রুটি কাকে বলে?

উত্তর: পর্যবেক্ষকের দৃষ্টির দিকের কারণে পরিমাপে যে ত্রুটি দেখা যায় তাকে লম্বন ত্রুটি বলে।

প্রশ্ন ৫. কেন্দ্রমুখী বলের সংজ্ঞা দাও। 

উত্তর: কোনো বস্তুকে বৃত্তাকার পথে গতিশীল রাখতে কেন্দ্রের দিকে যে বল প্রয়োগ করতে হয় তাকে কেন্দ্রমুখী বা অভিকেন্দ্র বল বলে।

>> পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট

প্রশ্ন ৬. অভিকর্ষ কেন্দ্র কাকে বলে?

উত্তর: কোন বস্তুর উপর পৃথিবীর আকর্ষণ বলের লব্ধি যে বিন্দুতে ক্রিয়া করে তাকে বস্তুটির অভিকর্ষ কেন্দ্র বা ভরকেন্দ্র বলে।

প্রশ্ন ৭. কেপলারের তৃতীয় সূত্রটি বিবৃত কর।

উত্তর: সূর্যের চারদিকে প্রতিটি গ্রহের আবর্তনকালের বর্গ সূর্য থেকে ঐ গ্রহের গড় দূরত্বের ঘনফলের সমানুপাতিক।

প্রশ্ন ৮. শব্দের তীব্রতা লেভেল কাকে বলে?

উত্তর: কোন শব্দের তীব্রতা এবং প্রমাণ তীব্রতার অনুপাতের লগারিদমকে ঐ শব্দের তীব্রতা লেভেল বলে।

প্রশ্ন ৯. অশ্বক্ষমতা কাকে বলে?

উত্তর: প্রতি সেকেন্ডে 746 জুল কাজ করার ক্ষমতাকে 1 অশ্ব ক্ষমতা বলে।

প্রশ্ন ১০. মুক্তিবেগের সংজ্ঞা দাও।

উত্তর: সর্বনিম্ন যে বেগে কোনো বস্তুকে খাড়া ওপরের দিকে নিক্ষেপ করলে তা আর পৃথিবীতে ফিরে আসে না সেই বেগকে মুক্তি বেগ বলে।

আরো পড়ুন>> HSC পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র চতুর্থ অধ্যায় নোট

অনুধাবনমূলক প্রশ্ন

প্রশ্ন ১. মুক্তিবেগের সংজ্ঞা দাও।

উত্তর: মুক্তিবেগ বলতে এমন একটি বেগকে বুঝানো হয় মহাকর্ষীয় ক্ষেত্রে যে মানের বেগে নিক্ষিপ্ত কোন বস্তুর গতিশক্তি ও মহাকর্ষীয় বিভবশক্তির সমষ্টি শুন্য হয়। মুক্তিবেগে কোন বস্তুকে কোন মহাকর্ষীয় ক্ষেত্র থেকে শুন্যে ছুড়ে দেয়া হলে তা আর ঐ মহাকর্ষীয় ক্ষেত্রে ফিরে আসে না।

প্রশ্ন ২. ভেক্টরের মান কখন ঋণাত্মক হয় এবং কেন? ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: ভেক্টরের মান কখনোই ঋণাত্মক হয় না। কারণ ভেক্টরের মান বলতে আমরা পরম মানকে বুঝি আর পরম মান কখনোই ঋণাত্মক নয়। একটি ভেক্টর অপর একটি প্রসঙ্গ ভেক্টরের বিপরীত দিকে কাজ করলে তা ঋণাত্মক হয়।

আরো পড়ুন>> এইচএসসি পদার্থ বিজ্ঞান ১ম পত্র

প্রশ্ন ৩. ঘর্ষণ বল ও সান্দ্র বল এক নয়- ব্যাখ্যা কর। 

উত্তর: ঘর্ষণ বল ও সান্দ্র বল উভয়ই গতির বিপরীত দিকে কাজ করলেও তাদের মধ্যে কিছু মৌলিক পার্থক্য থাকায় ঘর্ষণ বল ও সান্দ্র বল এক নয়। একটি বস্তু যখন অন্য একটি বস্তুর উপর দিয়ে গতিশীল হয় বা গতিশীল হতে চেষ্টা করে তখন বস্তু দুটির মিলন তলে বস্তুর গতির বিপরীতে একটি বাধাদানকারী বল ক্রিয়া করে।

এই বলের নাম ঘর্ষণ বল। তেমনি কোনো একটি প্রবাহী তার বিভিন্ন স্তরের আপেক্ষিক গতির বিরোধিতা করে যে বল প্রয়োগ করে তাকে ঐ প্রবাহীর সান্দ্রতা বলে। ঘর্ষণ বলের মান স্পর্শতলের ক্ষেত্রফলের উপর নির্ভর করে না, সান্দ্রতা বলের মান প্রবাহীর স্তরদ্বয়ের ক্ষেত্রফলের উপর নির্ভর করে। এছাড়াও, সান্দ্রতা বল প্রবাহীর স্তরদ্বয়ের বেগ ও স্থির তল থেকে এর দূরত্বের উপর নির্ভর করে। এ কারণে ঘর্ষণ বল ও সান্দ্র বল এক নয়।

>> পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট

>> পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট

>> পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট

2 Comments on “এইচএসসি পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায় নোট”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *